যৌন সমস্যা এবং তার সমাধান (Sex
Tips)
যে পদ্ধতিতে যৌনমিলন বেশিক্ষন
স্থায়ী হয়
.
পাশাপাশি মুখোমুখি শুয়ে
যৌনমিলনে স্ত্রী যদি
স্বামীর ডান পাশে থাকেন, তবে
স্বামী-স্ত্রীর
শরীরের দিকে কিছুটা এগিয়ে নিয়ে
গেলে
তিনি স্বাচ্ছন্দ্যে স্ত্রীর স্তনে, গলায়,
কাঁধে,
ঘাড়ে এমনকি ভগাঙ্কুরে হাতের মৃদু
সপর্শ দিয়ে
বহুক্ষণ আদর করতে পারেন।
.
স্বামী অস্বাভাবিক স্থুল দেহ হলে এই
ভঙ্গী
তাদের পক্ষে শ্রেষ্ঠ বলে বিবেচিত
হবে।
কারণ এতে পুরুষ দেহ স্ত্রীর পরে কোনো
অস্বাভাবিক চাপ সৃষ্টি করে না।
এছাড়াও যাদের লিঙ্গ ছোট বলে মনে
ভয়
পোষণ করেন তারা এই ভঙ্গীতে
যৌনমিলন
করে, নিজেদের ভয় থেকে মুক্ত হতে
পারেন
অনায়াসেই।
.
আবার যাদের পুরুষাঙ্গ উত্তেজনার সময়
সাত
ইঞ্চির বড় হয় তাদের স্ত্রীরা এই
ভঙ্গীতে
মাঝে মাঝে যন্ত্রণা অনুভব করতে
পারেন।
তবে লিঙ্গ অস্বাভাবিক জোরের
সঙ্গে প্রবেশ
না করালে কোনো রকম ব্যথা লাগার
কথা নয়
এ ভঙ্গীতে নারী যথেষ্ট সুখ পায় না
কারণ নারীর যৌনাঙ্গের সম্ভোগ
পুরোপুরি
পুরুষের যৌনাঙ্গে গুলিতে মিলিত
হয়ে
স্পর্শজাত উত্তেজনা খুব একটা সৃষ্টি
করতে
পারে না
.
তবে এ অভাব পুরুষ তার নিজের হাতের
সাহায্যে পুরণ করতে পারেন
যৌনমিলনের ফাঁকে ভগাঙ্কুর,
যোনিলোম এবং
যোনি আবরক পর্দায় হাত দ্বারা সপর্শ ও
মৃদু
ঘর্ষণ করলে স্ত্রীর যৌন উত্তেজনা
ক্রমেই
চরমে উঠতে থাকবে।
.
আবার নারীও এ ভঙ্গীতে কিছুটা
সক্রিয় হবার
সুযোগ পায়
এ ভঙ্গীতে সবচেয়ে বেশি সময়
যৌনমিলন করা
যায়
এ ভঙ্গীতে দু’জনার কেউই অত্যধিক
ক্লান্ত
হয়ে পড়ে না
.
রেগুলার সেক্স/স্বাস্থ্য বিষয়ক আপডেট
পেতে
লাইক,
কমেন্ট ও শেয়ার করে একটিভ
থাকুন।

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: