DOCTOR HAIR OIL .SAC COMPANY বিশ্বাস করে আপনারা তাদের পরিবারের একজন সদস্য। আপনি যেমন আপনার পরিবারের সদস্যদের খারাপ বা ভেজাল পণ্য খাওয়াতে চান না তেমনি আমরাও আপনার জন্য ভেজাল বা খারাপ পণ্য দিতে চাই না। কারণ আপনিও তো আমাদের পরিবারের একজন সদস্য।
আমরা আপনার জন্য সবসময় চেষ্টা করি ১০০% প্রাকৃতিক পণ্য সরবরাহ করার।

তার ধারাবাহিকতাই আমরা আপনার জন্য এনেছি DOCTOR HAIR OIL .এই তৈল এ আছে,, ব্যস্ত জীবনে চুলের যত্ন | সকল সমস্যার সমাধান হবে তেলেই!
লিখেছেন – dr adnan sami ডক্টর হেয়ার অয়েল
চুলের যত্নে তেলের গুরুত্ব অপরিসীম। তবে সঠিকভাবে তেল না দিলেও হতে পারে বিপত্তি। মাথায় তেল দিয়ে বাইরে গেলে চুলে ধুলোবালি জমে। সে ক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় মাথায় তেল দিয়ে রাখাও বিপদ। তাই মাথায় সঠিকভাবে তেল দেওয়ার নিয়ম জেনে নেওয়া উচিত। বিস্তারিত জানাচ্ছেন dr adnan sami,md doctor hair oil,,,,চুলে সঠিক পুষ্টি যোগাতে তেলের গুরুত্ব অপরিসীম।
চুলপড়া (Hairfall), টাক পড়া (Alopecia) বা টাক মাথায় চুল গজানোর সেরা

শরীরের কোন স্থানের চুলগুলি যদি উঠে যায় তবে তাকে টাক পড়া বা Alopecia বলে। নানা কারণে এইরুপ চুল উঠা সম্ভব। প্রথমত বিশেষ প্রকার পরাঙ্গপূষ্ট কীটানু চুলের গোড়াগুলিকে আক্রমণ করে ঐগুলিকে ক্ষীণ করে দেয়। তখন গোছা গোছা চুল উঠে যেতে থাকে।
তারপর উপদংশ, মানসিক সংঘাত, ভয়, শিরত্বকের শীর্ণতা, কোন দুর্বলতর রোগভোগ, বার্ধক্য জনিত দুর্বলতা, প্রভৃতি কারণে মাথার চুল উঠে যায়। আবার বংশগত কারণেও অনেক সময় এই সমস্যা দেখা দেয়।
আপনি জেনে আনন্দিত হবেন- সম্পূর্ণ নিরাপদ ও কার্যকরভাবে টাক বা চুল পড়ার DOCTOR HAIR OIL সম্ভব। এতে চুলপড়া বন্ধ হয়। এমনকি কিছু কিছু ক্ষেত্রে টাক মাথায় নতুন চুল গজানোর মতো আশ্চর্যজনক কার্যকারিতা পাওয়া যায়।
চুলপড়ার
স্বনামধন্য চিকিৎসক ও গবেষক ডাঃmilon mahmud llondon , Alopecia নিয়ে বিস্তর গবেষণা করেছেন। উনার মতে অধিকাংশ টাক পড়া সমস্যার মূল কারণ মস্তকের শীরত্বকের চর্মরোগ। সেটা নিজের ও হতে পারে। আবার অন্য করো চর্মরোগ থাকলে সে যে বিছানায় বা হেলান চেয়ারে বসবে সেখানে বসলে বা বিস্রাম নিলে উক্ত ব্যক্তির মাথায়ও ঠিক আক্রান্ত ব্যক্তির মত টাক বা চুলপড়া সমস্যা হতে পারে।
চুলপড়া বা Alopecia রোগের কয়েকটি প্রকারভেদ আছে। তার মধ্যে সর্বাধিক যে রোগটি দেখা যায় তা হচ্ছে-
এলোপেসিয়া এরিয়াটা (Alopecia Areata)
সাধারণতঃ এই পীড়া প্রথমে একটি বিশেষ স্থানে আরম্ভ হয় এবং প্রায় ১/২ ইঞ্চি পরিমান স্থানের চুল পড়ে না যাওয়া পর্যন্ত কিছুই বুঝা যায় না। ক্রমে ঐ চুল উঠা স্থানটি বড় হয়ে একটি রুপার টাকার আকার ধারণ করে। এই প্রকারে সময়ে সময়ে ১০ থেকে ১২টি পর্যন্ত স্থান চুলশুন্য হয়ে যেতে পারে। আবার কখনও কখনও ঐগুলি মিলিয়ে গিয়ে একটা বড় টাকের সৃষ্টি করতে পারে। এই পীড়ার গতি কখনও ধীরে কখনও দ্রুত হয়।
চুল পড়া বা টাকের ৫টি প্রধান তাদের লক্ষণ
মস্তকে সম্পূর্ণ চূলশূন্য গোলাকার স্থান তৈরি হয়। কপালের উপর এবং দুই শঙ্খস্থান হতে গোছে গোছে চুল উঠে যায়। চুলের গোড়া সাদা হয়ে যায়। চুলশুন্য স্থানগুলি পরিস্কার, সাদা ও মসৃণ দেখায়। চুলপড়া বা টাক তথা Alopecia এর প্রধান।
চুল টানলে অথবা আঁচড়াইলে সহজেই উঠে আসে। সম্মুখ মস্তকের চুলই অধিক উঠে। মস্তকের ত্বকে ব্যথা থাকে। মুখমন্ডল দেখতে চর্বি মাখানোর মত মনে হয়।
অল্প বয়সে বা অকালে চুলপাকা। পাকস্থলীর বিভিন্ন পীড়া যেমন অত্যাধিক পেট ফাঁপা, গ্যাসট্রাইটিস, কোষ্ঠবদ্ধতা, প্রভৃতি পীড়া ভোগকালীন এবং সন্তান প্রসবের পর চুল উঠা। মস্তকে জ্বালা ও চুলকানি, বিশেষতঃ দিনের পরিশ্রমের পর শরীর গরম হয়ে উঠলে।উপদংশ পীড়া ভোগের পর চুল উঠা। মস্তকের অনেকখানি স্থান চুলশুন্য। রোগী সর্বদাই চুল আচড়াঁয়। নতুন চুল ভঙ্গুর ও কর্কশ। ক্ষেত্রবিশেষে সম্পূর্ণ মস্তকে টাক পড়তে দেখা যায়।
চুলে স্পর্শকাতরতা। কপালের নিকটবর্তী স্থানে স্থানে টাক পড়ে। মাথা শুষ্ক শল্ক দ্বাড়া আবৃত। কখনও কখনও শল্কগুলি কপাল ও কান পর্যন্ত বিস্তৃত হয়। শল্কগুলি দেখতে কদাকার।
টাকের বা চুলপড়ার (Hairfall) অন্যান্য প্রয়োজনীয়
কপালের উভয় পার্শ্বের চুল উঠে টাক পড়ে। আঁচড়াবার সময় চুল উঠে আসতে থাকে। চুলের কর্কশতা দেখা যায়। মস্তকের ত্বকে হলুদ বর্ণ ও সাদা শল্ক।
কঠিন পীড়া ভোগ, পারদের অপব্যবহার অথবা প্রসবের পর চুল উঠা। মস্তকে চাপ দিলে ব্যথা করে। মস্তকের পশ্চাদ দিকের চুলই বেশী উঠে।
আঁচড়াইবার সময় চুল উঠে। ভ্রুঁ, গোঁফ-দাড়ি এবং জননেন্দ্রিয়ের চুল উঠে যায়। চুলউঠা স্থানটি একটি মুদ্রার মত গোলাকার দেখায়। মস্তকত্বকে শিহরণ। ঐখানটা কঠিন ও সঙ্কুচিত বলে মনে হয়।
অল্প বয়সে টাকপড়া। স্ত্রীলোকের মাসিকের পূর্বে মস্তক ও জননেন্দ্রিয়ে চুলকানি।
সাদা আইসযুক্ত খুসকি। চুল শুষ্ক এবং চুলপড়া।
টাক মাথায় চুল গজানোর শ্রেষ্ঠ
চর্মরোগ বসে গিয়ে টাক বা চুল পড়ার
মাথার চর্মে সাদা ভুসির মত ময়লা দেখা যায়। মাথায় চুলকানি থাকে। এছাড়া মাথায় দাঁদ হলে পরবর্তীতে সেই দাঁদ চিকিৎসা অপচিকিৎসার মাধ্যমে বসিয়ে দেয়া হলে পরবর্তীতে যদি উক্ত রোগীর মাথায় টাক জাতীয় সমস্যার সৃষ্টি হয় তবে এক্ষেত্রে উক্ত টাক মাথায় চুল গজানোর শ্রেষ্ঠ DOCTOR HAIR OIL।

doctor hair oil
এছাড়া চুলকে সিল্কি করতে ও চুল গজাতেও সাহায্য করে তেল। কিন্তু চুলে তো আপনি নিয়মিত তেল দিচ্ছেন, তবুও যেন ‍দেখা যাচ্ছে চুল অপুষ্টিতে ভুগছে, চুল সিল্কি হচ্ছে না। যেমন তেমন করে চুলে তেল লাগালেই কি চুলে পুষ্টি পাওয়া যাবে!

চুলে তেল লাগানো প্রয়োজন তাই চুলে তেল লাগাচ্ছেন। চুলে পুষ্টি পাক আর না পাক সেই চিন্তা কখনও করা হয় না। কিন্তু এদিকে আবার বলা হয় চুলে কেন পুষ্টি পাচ্ছে না। মূলত, চুলে তেল লাগানোর কিছু নিয়ম আছে। এই নিয়মগুলো অনুসরণ করলে চুলের সুস্থতা ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

চুলে তেল লাগানোর কিছু পদ্ধতি

হালকা গরম তেল-doctor hair oil

ঠাণ্ডা তেল দিয়ে ম্যাসাজ করা আর হালকা গরম তেল দিয়ে ম্যাসাজ করার মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। হালকা গরম তেল চুলে লাগালে অনেক বেশি কার্যকর পাওয়া যায়। আর এই তেল সহজেই মাথার ভিতর পৌঁছে যায়। তাই মাথায় লাগানোর আগে তেলটা হালকা গরম করে নিন।

খুব জোরে ম্যাসাজ নয়-

গরম তেল দিয়ে শুধু ম্যাসাজ করলেই হবে না। খুব জোরে জোরে ম্যাসাজ করলে চুলের গোড়া থেকে চুল দুর্বল হয়ে যায়। জটও পড়ে বেশি। তাই হালকা হাতে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন। চুল ভালো থাকবে এবং তেলটাও ভালো বসবে।

চুলে তেল দিয়েই শ্যাম্পু করবেন না-

চুল ভালো রাখতে তেল লাগান। অনেকেই আছেন যারা চুলে শ্যাম্পু করার আগে আগে তেল দিয়েই ধুয়ে ফেলেন। এটা মোটেও ঠিক নয়। এভাবে চুল কখনও পুষ্টি পায় না। তাই চুলে তেল দিয়ে মাথায় বসার সময় দিন। তেল যেন পুরো চুলে ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে পারে, সেই সময় দিতে হবে। আপনি আগের রাতে চুলে তেল দিয়ে পরদিন সকালে শ্যাম্পু করতে পারেন। হালকা গরম পানি দিয়ে চুল পরিষ্কার করতে পারেন।

চুলে তেল দেওয়ার আগে চিরুনি করুন-

জট পড়া চুলে তেল লাগালে আরও বেশি জট পড়ে যায়। এতে চুলের গোড়া ফাটার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই তেল লাগানোর আগে জট ছাড়িয়ে নিন। ফলে চুলে সুন্দরভাবে তেল লাগাতে পারবেন।

চুলের ডগাতেও তেল লাগান-

তেল লাগানোর সময় চুলের গোড়াতেই বেশি ম্যাসাজ করা হয়। চুলের বাকি অংশগুলিরও সমানভাবে যত্ন প্রয়োজন সে কথা মনেই থাকে না। আসলে, চুলের সব থেকে স্পর্শকাতর অংশ হল ডগা। ধুলো-ধোঁয়া, সূর্যের তাপ বা বাহ্যিক নানা কারণে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় চুলের ডগা। তেল লাগানোর সময় তাই চুলের গোড়ার পাশাপাশি ডগাতেও ভালো করে তেল লাগান।doctor hair oil

তেল দিলে চুল সুন্দর হওয়ার পাশাপাশি মাথার তালুতে তেল ম্যাসাজ করার ফলে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। ফলে চুল সুন্দর, কোমল ও গোড়া মজবুত হয়। চুলে তেলের ক্ষেত্রে আমরা সাধারণত নারিকেল তেল ব্যবহার করে থাকি। চাইলে এর সঙ্গে কিছু দরকারি তেল মিলিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে চুল বাড়তি পুষ্টি পাবে। চুল পড়ে যাওয়া, খুশকি, এমনকি চুল লম্বা না হওয়া—সব সমস্যার সমাধান হতে পারে তেল। তেলের অন্যতম গুণ হলো—এটি চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে। তবে জেনে নিতে হবে কোন চুলে কেমন তেল ব্যবহার করা উচিত। বেশি সময় তেল দিয়ে রাখলে বেশি উপকার মিলবে এ ভাবনাও ভুল। শ্যাম্পু করার ৩০ মিনিট আগে চুলের গোড়ায় তেল দিলেই হবে। এর বেশি সময় তেল রেখে দিয়ে আসলে লাভ নেই। কেননা মাথার ত্বক এর চেয়ে বেশি তেল শোষণ করতে পারে না; বরং বেশিক্ষণ তেল দিয়ে রাখলে চুলে ময়লা এসে আটকে যাবে। চুলের গোড়া হয়ে পড়বে দুর্বল। তৈলাক্ত চুলের গোড়ায় তেল না দিয়ে আগায় দিতে হবে। মানুষের শরীর থেকেও তেল বের হয়। যাকে বলা হয় সিবাম সিক্রেশন। চুল অনেক বেশি লম্বা হলে মাথার তালু থেকে বের হওয়া তেল চুলের আগায় পৌঁছতে পারে না। মাসের পর মাস এই কাজ হওয়ায় চুলের আগা শুকনো হয়ে ফেটে যায়। একে বলা হয় সিপ্লট এন্ডস। যাদের ত্বক বেশি তৈলাক্ত, চুলের গোড়ায় তেল না দিয়ে আগায় দেওয়াই ভালো। চুলে তেল দেওয়ার সময় একটি পদ্ধতি অনুসরণ করা যেতে পারে।

প্রথম ধাপ : তেল সব সময় পরিষ্কার চুলে দিতে হবে। চুলে তেল দেওয়া শুরু করার আগে ভালোভাবে আঁচড়ে জট ছাড়িয়ে নিতে হবে।

দ্বিতীয় ধাপ : চুল মাথার মাঝখান বরাবর দুই ভাগ করে নিন। হাতের তালুতে এক চা চামচ পরিমাণ তেল নিয়ে ভালোভাবে দুই হাতে ঘষে চুলে লাগিয়ে নিন, যাতে ভালোভাবে তা ছড়িয়ে পড়ে। তারপর আঙুলের ডগা দিয়ে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করতে থাকুন।

তৃতীয় ধাপ : এই নিয়মে মাথার সম্মুখ ভাগ, পেছন এবং কানের পেছনের অংশ ম্যাসাজ করুন।

চতুর্থ ধাপ : আবার এক চা চামচ তেল নিয়ে হাতের তালুতে ঘষে চুলের লম্বা অংশে লাগান।

পঞ্চম ধাপ : এভাবে স্কাল্প ও চুল ১০-১৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। তারপর চুল ভালোভাবে আঁচড়ে নিন, যাতে সম্পূর্ণ চুলে তেল ভালোভাবে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। শ্যাম্পু করে নিন। চাইলে তেল দিয়ে সারা রাত রাখতে পারেন, তবে ২৪ ঘণ্টার বেশি না রাখাই উত্তম।

মনে রাখুন : মাথায় লাগানোর আগে তেলটা অল্প গরম করে নিলে চুলের পুষ্টি বৃদ্ধি পায়। শুধু তাই নয়, মাথার তালুতে রক্ত চলাচল বাড়ে। তেল গরম করার সময় না থাকলে হাতে নিয়ে একটু ঘষে নিলেও তেলের তাপমাত্রা বাড়বে।

অনেকে চুলে এমন ভাবে তেল লাগান, যেন যুদ্ধ করছেন। এভাবে তেল লাগানো একেবারেই অনুচিত।doctor hair oil………
যাদের অনেক চুল পরছে,কিন্তু এই চুল পড়া বন্ধের জন্য অনেক কিছু ব্যবহার করে ও চুল পড়া বন্ধ হচ্ছে না। এবং যাদের চুল পরে টাক পরে যাচ্ছে।তাদের জন্য এই doctor Hair Oil এটি ব্যবহার এ-
◘ মাত্র ৭ দিনে চুল পড়া বন্ধ করবে।
◘ ১মসে নতুন চুল গজানো শুরু করবে।
◘ ২-৩মাসে আপনার চুল হবে আরও ঘন ও শক্ত হবে।
◘ পাতলা চুল ঘন করবে।
◘ চুল কে গোঁড়া থেকে শক্ত করবে।
◘ নরম চুল কে শক্ত করবে।
◘ চুলের আগা ফাটা রোধ করবে।
◘ ক্ষতিগ্রস্থ চুলকে পুনরুদ্ধার করবে।
◘ চুল এর খুস্কি দূর করবে।
◘ অনুজ্বল চুলকে উজ্জল করে।
◘ চুল হবে আরও smooth ও Silky——
◘ আপনার চুল কালো চকচকে হবার পাশাপাশি করবে আরও শক্তিশালী ।
◘ ছেলে মেয়ে উভয়ই ব্যবহার করতে পারবে।

doctor hair oil
সমস্যা
doctor hair oil
উপকারিতাঃ
• চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে।
• নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।
• চুলের গোঁড়া মজবুত করে।
• চুল সিল্কি ও স্বাস্থ্যবান করে।
• সাধারণত আমরা জানি যে,চুল ফেটে গেলে না কাটা পর্যন্ত চুল বড় হয় না। কিন্তু এই তেল এর ক্ষেত্রে চুল ফাটার সমস্যার সম্পূর্ণ সমাধান না হলেও ফাটা চুল বড় হয় এবং তেল দিয়ে ধুয়ে ফেলার পরে ফাটা চুল খুব একটা বোঝা যায় না।

ব্যবহার বিধিঃ
• প্রথম সপ্তাহে ৫ দিন (রাতে) চুলে তেল দিয়ে পরের দিন শ্যাম্পু করে ফেলবেন। দ্বিতীয় সপ্তাহে ৪ দিন এবং একই ভাবে তৃতীয়সপ্তাহে ৩ দিন ব্যবহার করবেন।
• এরপর সপ্তাহে ২-৩ দিন তেল দিবেন (চুলের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী)।
• মাথার কোন অংশে চুল কম থাকলে ঐ অংশগুলতে রাতে তেল দিয়ে রাখুন, শারীরিক কোন সমস্যা না থাকলে ধীরে ধীরে নতুন চুলের অস্তিত্ব বুঝতে পারবেন ইনশাআল্লাহ্‌।
• রাতে তেল দিয়ে ঘুমাতে অসুবিধা হলে গোসলের ১-২ ঘণ্টা আগে তেল দিয়ে গরম পানিতে ভেজানো তোয়ালে মাথায় পেঁচিয়ে রাখুন।
• তেল দেবার আগে ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে নিবেন।
• তেল দেবার আগে চুল আঁচড়ে নিবেন। তেল দেবার পরে আঁচড়ানোর দরকার নাই।
• শীতকালে তেল হালকা গরম করে নিবেন।

সাবধানতাঃ
• চুল কালার করার ২ সপ্তাহের মধ্যে তেল দিবেন না। কেমিক্যাল এর প্রভাবে তেল কাজ করবে না।
• চুলের ক্ষতি হয় এমন স্টাইলিং টুল ব্যবহার করলে চুলের যত্নও একটু বেশি নিবেন।
• চুল পড়া কমানোর জন্য অবশ্যই নিয়ম মত ব্যবহার করতে হবে।
• মাথায় তেল দিয়ে বাইরে যাবেন না। তৈলাক্ত মাথায় বাইরের ধুলা বালি জমে। ময়লা চুলের জন্য খুসকি হয় এবং চুল পড়ে।

টিপসঃ
• চিরুনি পরিস্কার রাখবেন ।
• প্রচুর ফলমূল, মাছ ও পানি খাবেন ।
• আঁচড়ানোর সময় চুলে প্রেসার দেওয়া ঠিক না। আস্তে আস্তে চুল আঁচড়াবেন।
• ভাল মানের শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন।

মনে রাখবেনঃ
• আমাদের এই তেল ১ সপ্তাহে টাকে চুল গজানোর কোন ম্যাজিকাল তেল নয়।
• হরমনাল সমস্যার জন্য যদি তেল কাজ না করে তাহলে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।
• এই তেলের ব্যবহার প্রাকৃতিক ভাবেই আপনার চুল পড়া কমাবে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করবে । কারন এই তেল তৈরিতে শুধুমাত্র ৬ ধরনের তেল এবং 36 ধরনের প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে ।
• শুধুমাত্র নিয়মিত ব্যবহারেই আপনি ভাল ফলাফল আশা করতে পারেন ।
• এই তেলে কোন প্রিসারভেটিভ ব্যবহার করা হয় না যে কারনে সময়ের সাথে তেলের গন্ধে কিছুটা পরিবর্তন আসতে পারে।
• তেল শুষ্ক ও পরিষ্কার জায়গায় রাখুন। মাঝে মাঝে রোদে দেওয়া ভাল।
• যদি সম্ভব হয় তেলটি কাঁচের বোতলে রাখবেন। (ডেলিভারির সময় ভেঙে যায় এ কারনে আমরা প্লাস্টিকের বোতলে তেল সরবরাহ করি)
• দিনে ১০-১৫ টা চুল পড়া স্বাভাবিক। এটা পুনরায় গজায়।

মানুষের সৌন্দর্যের অন্যতম আকর্ষণ হচ্ছে মাথার চুল। সম্প্রতি সময়ে চুল পড়া সমস্যা বড় উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই সমস্যায় ভুগছেন অনেকেই। প্রতিদিন কিছু পরিমান চুল পড়া স্বাভাবিক হলেও বেশি পরিমানে চুল পড়াটা উদ্বেগের বিষয়। নিয়মিত চুলের পরিচর্যা করে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। আর এ জন্য আমরা তৈরি করেছি
doctor hair oil

doctor hair oil মূলত একটি হেয়ার কেয়ার পণ্য। এটি সম্পূর্ণ কেমিক্যাল মুক্ত company তৈরি তেল। এটি চুল পড়া কমাতে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে । তবে চেষ্টা করবেন চুল খুশকি মুক্ত রাখতে । মাথার ত্বক অপরিষ্কার থাকার কারনে খুশকি হয় এবং চুল পড়ে। এজন্য সবসময় চুল পরিস্কার রাখুন। চুলের খাদ্য তেল তাই নিয়মিত তেল দেওয়া অভ্যাস করুন

doctor hair oil
আজকাল সবাই ব্যস্ত। কেউ আর ঘরে বসে থাকে না। প্রতিটা দিনই নতুন করে জীবন যুদ্ধ করতে হয়। এত কিছুর মাঝে নিজের যত্ন নেবার কথা কার মনে থাকে বলুন! খাবার খাওয়াই ঠিক সময়ে হয়ে ওঠে না আর অনেকটা সময় নিয়ে চুলের যত্ন এক প্রকার বিলাসিতা বলা চলে। অথচ আপনার ব্যস্ত জীবনে অযত্ন ও অবহেলায় চুলতো ক্রমেই শুষ্ক ও নিষ্প্রাণ হয়ে সব ঝরে পড়ছে! দিন দিন টেকো মাথার লোকদের মতন চুপসে যাচ্ছেন আপনিও? নিজের মাঝে আগের মত কনফিডেন্সও আর দেখতে পান না! চুল তো বাঁচাতেই হবে! শত ব্যস্ততায়ও নিজেকে হারানো যাবে না কোনভাবেই! ভাবছেন এত ব্যস্ত জীবনে চুলের যত্ন কিভাবে একটু সহজ উপায়ে নেয়া যায়? পানির মতই সহজ সমাধান দিচ্ছি! দেখে নিন তাহলে!

doctor hair oil

ব্যস্ত জীবনে চুলের যত্ন নিতে সব জানুন ধাপে ধাপে
১) ব্যস্ত জীবনে চুলের যত সমস্যা
চুলের যত্ন নেবার আগে আমাদের উচিত আগে চুলের সমস্যা খুঁজে বের করা। তারপর সে অনুযায়ী যত্ন নেয়া। কিন্তু আমাদের একটা কমন ভুল হলো সমস্যা না জেনেই এলোপাথাড়ি যত্ন নিতে শুরু করি। এতে আরও হিতে বিপরীত হয়। আসুন জেনে নেই কমন কী কী চুলের সমস্যা আমরা ফেইস করে থাকি-

রুক্ষতা
চুলের আগা ফেটে যাওয়া
অকালে চুল পাকা
চুল পড়ে যাওয়া
মুখ মলিন হয়ে গেল বুঝি? এই সকল সমস্যার কারও একটি, কারো দুটি আবার কারোও বা সবগুলো সমস্যাই আছে। তাহলে কি আলাদা আলাদা হেয়ার কেয়ার করতে হবে? ভয় পাবেন না। একটি সহজ ও আমার সিক্রেট সল্যুশন বলছি!

২) চুলের সব সমস্যার এক সমাধান!
আগের দিনে মা-নানীদের চুল এত কেন সুন্দর থাকত বলুন তো? জানেন, তবুও বলে দেই। তাদের চুলে হাসি খেলত তেলের যাদুতে। শুধুই তেল? উহু! তাদের চুলের যত্ন হতো তেলের সাথে নানান আয়ুর্বেদিক উপাদানে! আমাদের এই শহুরে ব্যস্ত জীবনে চুলের যত্ন নিতে এইসব আয়ুর্বেদিক উপাদান কোথায় পাওয়া যায় তাই ভাবছেন নিশ্চয়ই? হুম! এটাইতো আমার সিক্রেট! আমি আমার ব্যস্ত জীবনে চুলের সব সমস্যার সমাধান হিসেবে খুঁজে নিয়েছি doctor hair oil!

ব্যস্ত জীবনে চুলের যত্ন নিতে dr adnan sami sir ar doctor hair oil
কী কী আছে এতে জানেন? দূর্লভ কিছু আয়ুর্বেদিক উপাদান যা চুলকে মজবুত, ঘন ও কালো করে। আর অকাল পক্কতা থেকেও দূরে রাখে। চুলে পর্যাপ্ত পুষ্টি যুগিয়ে চুলের আগা ফাটাও রোধ করে! আহা! বলে দিলাম আমার সিক্রেট! থাক, আমি সকলের সুন্দর চুলের হাসিতেই মুগ্ধ হতে চাই। ওহ, যা বলছিলাম, 35 rokom ar harbs -এ আছে সাদা থাইম, জবা ফুল, কিজরি বা মালাকাঙ্গনি বীজ আর কালো গোল মরিচের গুঁড়া! এই উপাদানগুলো চুল পাকা রোধ করে, চুলের রুক্ষতা দুর করে এমনকি কালো গোল মরিচ স্ক্যাল্প-কে করে দূষণমুক্ত! সাদা থাইম আর মালাকঙ্গনি বীজ হেয়ার ফলিকল উদ্দীপিত করে নতুন চুলও গজায়!

৩) তেল দিয়ে কি কোনো ইজি হেয়ার প্যাক বানানো যাবে?
শুধু মাত্র doctor hair অয়েল ইউজ করলেই উপকার হবে। তবে খুব দ্রুত উপকার পেতে হলে আপনি কালোজিরার হেয়ার প্যাক ইউজ করতে পারেন। সত্যি বলছি! ব্যস্ত জীবনে চুলের যত্ন নিতে অনেক অনেক ,ডক্টর হেয়ার অয়েল

★যাদের চুলে ঝরে যায়, প্রচণ্ড পাকিয়ে যায়,মাথা ঠান্ডা রাখে, মাইগ্রেন ব্যথা কমায়, চুল ঘন কালো উজ্জ্বল করে এবং কোঁকড়ানো এবং যারা চুল সোজা রাখতে পচ্ছন্দ করেন তাদের জন্য এটি বিশেষ উপকারী । এটি যে কোনও চুলের জন্যেই ডক্টর হেয়ার অয়েল আদর্শ l
➡তৈল অ্যাপ্লাই করার পর সহজেই চুলে জট পড়বে না,
➡চুল থাকবে সোজা ও ঘন ঘন চুলের ডগাও ফাটবে না,
➡চুল পড়ার সমস্যাও একেবারেই কমে যাবে।
➡এটা চুলকে সিল্কি ,softy, সাইনি করে
➡Hair fall off করে
➡চুল nourishing করে
➡hair damage remove kre, rebounding hair a extra care kore
➡এটা এন্টি কন্ডিশনিং
➡এটি চুল পড়া বন্ধ করে
➡চুলের গোড়া শক্ত করে,নতুন চুল গজাতে কাজ করে
➡চুলের শুস্কতা দূর করে
➡চুল কে সিল্কি করে
➡চুল শাইনিং করে,,মাথা ১০০% ঠান্ডা রাখে
ব্যবহার বিধিঃ- চুল ভাগ ভাগ করে ডক্টর হেয়ার অয়েল টি ভালভাবে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর হালকা ম্যাসেজ করে ফেলুন।আর দেখুন যাদু।
এইভাবে সপ্তাহে ৩-৪ দিন ব্যবহারে আপনি পাবেন সোজা মসৃণ ঘন, সফট সিল্কি এবং শাইনি হেয়ার,মাথা ঠান্ডা করতে, জুড়ী নেই,,
ঘুমের রাজ্যের রাজা এই তৈল,
লন্ডনের প্রফেসর ডাঃ মিলন মাহমুদ এর ভেজষ মিশ্রণ পরামর্শ।
এই তৈল ৫ জন ডক্টর এর পরামর্শ আর ডাঃ আদনান সামি এর ন্যাচারাল প্রাকৃতিক ফরমূলায় তৈরি।
সাইন্স ল্যাব হতে পরীক্ষীত।
বি এস টি আই অনুমোদিত।
এই তৈল যদি আপনার উপকারে না আসে, ছাইয়ের গাদায় ফেলে দিন, আর আপনার ১০ জন বন্ধু বান্ধব কে ডক্টর হেয়ার অয়েল কিনতে নিষেধ করুন।
আর যদি উপকার পান তাহলে আপনার মাথা ঠানডা রেখে আপনার সব পরী কল্পনা সফল করুন,
মনে রাখবেন গরম মাথায় সাফল্য আসেনা, ততই আপনি হেরে যাবেন,
এজন্যই আপনার দরকার ডক্টর হেয়ার অয়েল,ব্যাবহার করুন, ঠান্ডা মাথায় ভাবুন, চলতে থাকুন আপনার সাফল্যের জগতে।
সৌজন্য, ডক্টর হেয়ার অয়েল, কোমপানী হটলাইন ০১৬২৩১৭১৭
ব্যস্ততায় চুলের যত্নে doctor hair oil বিশ্বাস করুন, ক্ষতি নেই একটুও! কালোজিরায় রয়েছে থাইমোকুইনোন, ডিথাইমোকুইনোন, থাইমল ও থাইমোহাইড্রোকুইনোন যা চুলের যত্নে যাদুর মত কাজ করে। চুলের যত্নে কালোজিরার উপকারিতাগুলো বললেই বুঝবেন। বলছি তবে-

কালোজিরা চুলের গোড়া মজবুত করে
মাথার ত্বকে হেয়ার ফলিকল উদ্দীপিত করে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে
চুল পাকা রোধ করে
চুল পড়া রোধ করে
তো মাথা থেকে সব চিন্তা ঝেরে ফেলুন! কারণ এই হেয়ার oilআপনি অফডে-তে, মানে সপ্তাহে মাত্র একদিন ইউজ করলেই
উপকরণঃ-যা লন্ডনে র ডা সহ বাংলাদেশের আরো ৫ জন ডাঃ দের পরামর্শ অনুযায়ী,
১.জাফরান
২.কালো কেশুর
৩.নাগদানা
৪.আলোকলতা
৫.দূর্বা
৬.বটের ঝুড়ি
৭.থানকুনি
৮.তেলাকুচা
৯.মেথী
১০.আমলকি
১১.হরতকি
১২.বহেড়া
১৩.জবা
১৪.পেঁয়াজ
১৫.রসুন
১৬.আদা
১৭.লেবু
১৮.তিলের তৈল
১৯.নারিকেল তৈল
২০.প্যারাফিন অয়েল
২১.ভিটামিন ই
২২.ভিটামিন সি
২৩.ম্যানথল অয়েল
২৪.থাইমল অয়েল
২৫.অশবগনধা
২৬.কুচ
২৭.গোলাপ ফুল
২৮.ক্যাসটর অয়েল
২৯.ঘৃত কানচন
৩০.কালোজিরা তৈল
৩১.লাউ
৩২.কুমড়ো
৩৩.আঙ্গুর
৩৪.লং
৩৫.পুই পাতা
36.sekhakay
৩৬.পারফিউম, বকুল,হাসনা হেনা, রজনীগন্ধা,জুই,বেলী।

ডক্টর হেয়ার অয়েল এর উপকারীতাঃ
*চুল ঝড়া বন্ধ করে
*চুল ঘন কালো উজ্জ্বল করে
*নতুন চুল গজায়
*চুলকে কোমলও মসৃণ করে
*চুল শক্ত ও মজবুত করে
*চুল আঠা হয়না
*চুলের আগা ফাটা রোধ করে
*চুলের গোড়া মজবুত করে
*সুনিদ্রা আনয়ন করে
*মাথা ২৪ ঘন্টা ঠান্ডা করে
*প্রসার নিয়ন্ত্রণ করে
*মেধাও স্মরন শক্তি বৃদ্ধি করে
*মাথা ব্যাথা দূর করে
*দুশ্চিন্তা রোধ করে
Doctor hair oil,, চুলের সকল সমস্যা সমাধান করবে।
💜 ৭ দিনে চুল পড়া 95% বন্ধ করবে।
💜১-২ মাসে নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।
💜প্রতি মাসে চুল -২ ইঞ্চি লম্বা করে।
💜চুলের গোড়া শক্ত ও মজবুত করে৷
💜চুলের আগা ফাটার সমস্যা দূর করে৷
💜চুলকে লম্বা, রেশমি ও স্বাস্থ্যোজ্বল করে৷
💜কোঁকড়া চুল and অতিরিক্ত জট দূর করে চুলকে করে সিল্কিl
১ সপ্তাহের মধ্যে দেখবেন চুল পড়া 95℅ কমে গিয়েছে আর এক-ই সাথে নতুন চুল গজাচ্ছে এবং দ্রুতগতিতে চুল লম্বা হচ্ছে।
বি দ্র :
95℅ মাথার চুলের উপরে পুর্ন কার্যকরী ভুমিকা রাখে!
বিভিন্ন রোগের কারণে 5℅ মানুষের কাজ ধিরে হয়ে থাকে।
এই তৈল যদি আপনার ব্যবহার করার পর উপকারে না আসে তাহলে ছাইয়ের গাদায় ফেলে দিন আর আপনার পরিচিত ১০ জনকে এই তৈল না কেনার পরামর্শ দিবেন।

আর যদি উপকার পান তাহলে কিকি উপকার পাইছেন তার একটা ভিডিও করে ডক্টর হেয়ার অয়েল এর পেজ এ ছাড়িয়ে দিয়ে আপনিও হয়ে উঠুন লক্ষ পতি,আর শেয়ার লাইক ভিডিও তে যদি সবচেয়ে আপনি এগিয়ে থাকেন,,

বাংলাদেশে আমরাই একমাত্র ১০০% ন্যাচারাল হাবস দিয়ে তৈল তৈরী করে থাকি,
students দের অগ্রাধিকার থানা ডিলার শীপ নিতে, কোম্পানি ০১৬২৩১৭১৭১৭,০৯৬০২১১১১৪.ডক্টর হেয়ার অয়েল i
কেউ একজন কোথাও না কোথাও, কোন এক জায়গায়, হয়তো অন্য কোন প্রান্তে আপনার জন্য ফান্ড নিয়ে, আইডিয়া নিয়ে কিংবা বিশাল ক্রেতা হিসাবে অপেক্ষা করছে… তাঁকে খুঁজে বের করার নিরন্তর সব প্রচেষ্টার নাম নেটওয়ার্কিং।

হয়তো বা এই গ্রুপের কেউ একজন বা তাদের কোন আত্মীয় বা বন্ধু, হয়তো আপনার পাশে চেয়ারের কেউ যার সাথে বাসে, ট্রেনে, প্লেনে বা হেঁটে যেতে আপনি লজ্জায়, ভয়ে বা সংকোচে কথা বলেন নি। হয়তো বা ৮৯ জনের সাথে কথা বলেছেন কিন্তু হতাশ হয়ে বা পাত্তা না পেয়ে ৯০ তম জনের দিকে ফিরে তাকান নি।

অথচ ঐ ৯০ তম জনই হয়তো বা হতে পারে আপনার টারনিং পয়েন্ট, যাকে আপনার দরকার ছিল। সেও হয়তো আপনাকেই খুঁজছিল। তবে সম্পর্ক গুলুকে গেঁথে রাখতে হবে সততা ও বুদ্ধিমত্তা দিয়ে, উইন উইন বজায় রেখে। ওটাই হবে আপনাকে মনে রাখার কারণ।

কেউ একজন অপেক্ষা করছে আপনার জন্য… খুঁজতে হবে প্রতিনিয়ত এবং যুক্ত করতে হবে হাজারো মানুষকে এই বন্ধনে।জীবন সত্যিই ফুলের বিছানা নয়। তাই যদি হতো হতো তাহলে প্রত্যেকের জীবনে তে একটি করে সফলতার গল্প থাকত। প্রত্যেক মানুষই বলতে পারত নিজের বলার মত একটা গল্প। প্রত্যেক মানুষই সফল হতে পারত
কিন্তু সফলতা তো তাই যখন আপনি অনেক অনেক বাধা-বিপত্তি,, চড়াই-উৎরাই পার করে আপনার লক্ষ্যে পৌঁছাবেন সেটাই হবে সত্যিকারের সফলতা। আর আমরা যে যত বেশি পরিশ্রম করতে পারব যে যত বেশি বুদ্ধিমত্তার সাথে এই সমস্ত বাধা-বিপত্তির দূর করতে পারবো তারাই সফলতার স্বর্ণ শিখরে পৌঁছাতে পারবো।ddctor hair oilপ্রতি উপজেলায় একজন মেডিকেল
রিপ্রেজেন্টেটিভ, প্রতি জেলায় একজন এরিয়া ম্যানেজার, প্রতি বিভাগে একজন রিজোনাল সেলস্ ম্যানেজার, অথবা ডিলার, সর্তসাপেক্ষে নিয়োগ দেওয়া হইবে।compny 01623171717 product only 1 ta DOCTOR HAIR OIL….

আমি আসলে বেকার পরে থাকা স্টুডেন্ট দের কাজে লাগাতে চাচ্ছি
যারা স্টুডেন্ট, কিন্তু অলস সময় পার করে
যেমন সে স্টুডেন্ট,সাথে পার্ট টাইম চাকরি ও করতেসে না,আবার ব্যাবসা ও করতেসে না। আমি নিজে ইনভেস্ট করে তাদের জন্য পার্ট টাইম একটা ইনকামের রাস্তা খুলতে চাচ্ছি যেখানে তারা ডেইলি ৬ ঘন্টা কাজ করলে মাসে তাদের ৬-১০ হাজার থাকতে পারে এবং আমার company er ও কিছু থাকবেi
যারা চাকরি এবং খেদমতের পাশাপাশি ব্যবসা করতে চান ৷তারা আজ,ই যোগাযোগ করেন সারা দেশে ডিলার নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে DOCTOR HAIR OIL 01623171717 SAC কোন কাজ কখনো ছোট হয় না, সত্য বলতে গেলে- ছোট আমাদের চিন্তাভাবনা!নকল,ভেজালের বেড়াজালে নয়,আমরা প্রমাণ করতে চাই ভালো সার্ভিস,ভাল প্রডাক্ট অামাদের অস্তিত্বের আস্থা। আপনাদের ভালোবাসা নিয়ে একটু নি:স্বাশ নিতে চাই নির্মল বিস্বাসের।অামাদেরকে সাথে রাখবেন এবং আমাদের সাথে থাকবেন এই প্রত্যাশা রেখে IDOCTOR HAIR OIL এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাই অসংখ্য ধন্যবাদhttps://www.facebook.com/Doctor-Hair-Oil-SAC-373766830014574/