হোমিওপ্যাথিক ঔষধের সংখ্যা!!dr

হোমিওপ্যাথিক ঔষধের সংখ্যা!!
বহুল পঠিত সুবৃহৎ কয়েকটি মে.মেডিকায় আলোচিত ঔষধের সংখ্যা নিচে দেওয়া গেল।
 এম. ভট্টাচার্য – তুলনামূলক মেটেরিয়া মেডিকা= ১০৮২ টি প্রায়।
 এন. সি. ঘোষ- কম্পারেটিভ মেটেরিয়া মেডিকা = ৭০০ টি প্রায়।
 T. F. Allen- The Encyclopedia Of Pure Materia Medica = ৮২০টি প্রায়।
 W. Boericke – Materia Medica = ৭৭৫টি প্রায়।
 J. T. Kent- Lectures On Mareria Medica = ২৩৬টি প্রায়।
 J. H. Clarke – Condensed Homeopathic Materia Medica = ৮৫০টি প্রায়।
 Samuel Hahnemann- 1. Materia Medica Pura and 2. The Chronic Diseases = ১৩১টি প্রায়। বিস্তারিত তথ্য আমার টাইমলাইনে ( ২৭শে নভেম্বর, ২০১৮) দেওয়া আছে।
মন্তব্যঃ এখানে স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি হোমিওপ্যাথিতে প্রায় এগারশো অধিক ঔষধ আছে। এখানে এমন কিছু ঔষধ আছে, যাদের অস্তিত্ব বাজারে নাই। আবার বহু ঔষধ আছে, যেগুলোর পরিবর্তে অন্যটি ব্যবহার করা যায়। এমন কিছু ঔষধ আছে, যেগুলো আদৌ ঠিকমত পরীক্ষিত নয়। এভাবে অনেক বলা যায়। তারপরও এসব ঔষধ আমাদের মেটেরিয়া মেডিকার আলংকারিক শোভায় শোভিত।

অন্যান্য মেটেরিয়া মেডিকাবিদদের তুলনায় ডাঃ হ্যানিম্যান ব্যতিক্রম। তাঁর ১৩১টি ঔষধের পরীক্ষা ও ব্যবহারের ইতিহাস পাওয়া যায়। কিন্তু তিনি ৪৮টি সুপরীক্ষিত এন্টিসোরিক ঔষধকে (১৮২৮-১৮৩৮) বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ছিলেন। এসব ঔষধের পূর্ণাঙ্গ বর্ণনা তাঁর ক্রনিক ডিজিজেজ গ্রন্থে বর্ণিত আছে। তিনি খুব অল্প সংখ্যক ঔষধের সাহায্যে চিকিৎসা বিজ্ঞানে হোমিওপ্যাথিকে শীর্ষে নিয়ে যেতে সক্ষম হন। কিন্তু তাঁর পরবর্তী ডাক্তারগণ প্রায় এগারোশ অধিক ঔষধ দিয়ে যথাযথ চিকিৎসা দিতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছে।
কিন্তু কেন???….
নিশ্চয় তাঁর পরবর্তী ডাক্তারগণ কোথাও সিস্টেম লস্টের কবলে পড়ে আছে। এখনও কি আমাদের বোধোদয় হবে না!! হোমিওচিকিৎসার অন্যান্য ক্ষেত্রের মত ( মায়াজম, মাত্রাতত্ত্ব, রোগী দেখার কৌশল, ঔষধ পরবর্তী রোগী পর্যবেক্ষণ ইত্যাদি) হোমিওপ্যাথিক ডাক্তারগণ তাঁর মেটেরিয়া মেডিকা জ্ঞানেও বিচ্যুত হয়ে পড়েছেন। ফলে কলেবরে ঔষধের কেবল সংখ্যা বাড়াতে পারলেও চিকিৎসার মান বাড়াতে পারেনি। আপনাদের কি মনে হয়?

About Amar Homoeo 105 Articles
www.amarhomoeo.com

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*